×
  • নজরে
  • ছবি
  • ভিডিও
  • আমরা

  • সিনেমা: গোলন্দাজ

    শুভস্মিতা কাঞ্জী | 12-10-2021

    গোলন্দাজ সিনেমার পোস্টার

    পরাধীন ভারতে ফুটবল পায়ে করা আরও একটা স্বাধীনতা সংগ্রামের গল্প গোলন্দাজ’, নায়ক ভারতের ফুটবল খেলার জনক নগেন্দ্র প্রসাদ সর্বাধিকারী। বন্দুক হাতেই যে কেবল সব যুদ্ধ হয় না, তা যেন আরও একবার এই সিনেমা মনে করিয়ে দিল। ইংরেজদের কাছে বারবার অপমানিত, লাঞ্ছিত হতে হতে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই, আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার ইতিহাস মনে করিয়ে দিল ধ্রুব ব্যানার্জির ছবিগোলন্দাজপঞ্চমীর দিন বড় পর্দায় মুক্তি পেল ধ্রুব ব্যানার্জি পরিচালিত এবং দেব অভিনীত ছায়াছবি গোলন্দাজ

     

    গল্পের বুনন দারুন, এতটুকু ঝিমিয়ে পড়েনি গল্প, উল্টে টানটান উত্তেজনা ছিল। ছিল বেশ কিছু ওয়াও মোমেন্ট। নগেন্দ্র প্রসাদের রক্তেই ছিল প্রতিবাদ। তিনি ছোট থেকেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়ে গেছেন, ফুটবলকে ধ্যানজ্ঞান মনে করেছেন। তাঁর নেতৃত্ব দেওয়ার দারুন ক্ষমতা ছিল। ক্ষমতা ছিল দল গঠনের। তাঁর হাত ধরেই ভারতের প্রথম ফুটবল ক্লাব তৈরি হয়। তিনি একাধিক ক্লাব রচনা করেছিলেন। ট্রেডস কাপ জিতে ইংরেজদের ক্রীড়া সংস্কৃতিতে, অহংকে আঘাত করেছিলেন। ভারতের তৎকালীন জাতি ধর্ম বর্ণ ভেদাভেদকে ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়ে একমাত্র খেলাকে গুরুত্ব দিয়েছেন। তাঁর জীবনী এবং তাঁর সঙ্গে জড়িত মানুষদের জীবনী এই গল্পে ফুটে উঠেছে। 

     

    আরও পড়ুন:সিঙ্গল স্ক্রিন হলের স্বাভাবিক মৃত্যু

     

    দেব বোধহয় নিজের জীবনের সেরা অভিনয় করেছেন এই সিনেমায়। নিজেকে ভেঙে নতুন ভাবে তৈরি করেছেন এই সিনেমায়। তাঁর এবং ইশার কেমিস্ট্রি দারুন ছিল। পাশাপাশি অনির্বাণ ভট্টাচার্য ভার্গবের ভূমিকায় অনবদ্য। দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করেছেন তিনি তাঁর অভিনয়ের মাধ্যমে। তবে সব থেকে বেশি নজর কেড়েছে এই সিনেমায় তাঁর এন্ট্রি। এছাড়াও নতুনদের মধ্যে নগেন্দ্র প্রসাদের ছোটবেলার ভূমিকায় যে বাচ্চাটি ছিল তাঁর অভিনয় ছিল দেখার মতো। নবাগত উজান চ্যাটার্জি বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি লম্বা রেসের ঘোড়া। জন ভট্টাচার্য, অনিরুদ্ধ গুপ্ত এঁরাও বেশ ভাল। ইন্দ্রাশিস আবার নিজেকে প্রমাণ করলেন এই ছবিতে, চরিত্রের সঙ্গে একাত্ম হয়ে গিয়েছিলেন ছবিতে। তবে মির্চি অগ্নি তথা অগ্নিজিৎ সেনের অভিনয়, বিশেষত তাঁর শেষ দৃশ্যে গায়ে কাঁটা দিয়েছে। নাড়ুর চরিত্র তাঁর জন্যই মনে থাকবে বহুদিন। 

     

    সিনেমাটিতে বিক্রম ঘোষের গান আলাদা করে প্রশংসার দাবি রাখে। প্রতিটি গানের নতুন রেন্ডিশন দারুন হয়েছে। তেমনই ভাল হয়েছে ক্যামেরার কাজ। বিশেষত গঙ্গার ঘাটের দৃশ্য এবং ময়দানের দৃশ্যগুলো দারুন ছিল। পুজোর সময় পুজোর ছবির সঙ্গে মানুষ আবার হলমুখী। যাবেন নাকি একবার সিনেমাটি দেখে আসতে? যেতে পারেন, হতাশ হবেন না

     

    রেটিং - 4.2/5


    শুভস্মিতা কাঞ্জী - এর অন্যান্য লেখা


    পৃথিবীর বাইরেও এই প্রথম কোথাও, কোনও গ্রহে হেলিকপ্টার উড়বে এবং তার নেপথ্যে থাকবে একজন ভারতীয়। 

    ক্রমাগত ভাঙনের ফলে ফুলহার নদ এবং গঙ্গার ব্যবধান এক কিলোমিটারে এসে দাঁড়িয়েছে

     বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা এভাবে চললে একদিন স্থির হয়ে যেতে পারে মঙ্গলগ্রহ।

    গ্যালাক্সির মাঝখান থেকে রহস্যময় রেডিও সঙ্কেতের পিছনে কি বুদ্ধিমান প্রাণী?

    বছরের পর বছর বরফে জমে থাকা পর্বতারোহীদের মৃতদেহ বিশ্ব উষ্ণায়ন ফলে প্রকাশ্যে আসছে।

    সিনেমা: গোলন্দাজ-4thpillars

    Subscribe to our notification

    Click to Send Notification button to get the latest news, updates (No email required).

    Not Interested